জানেন ভারতে 4G স্পিড বিশ্বে কত নং স্থানে আছে?

বর্তমানে বিশ্বের হাই-স্পিড ইন্টারনেটে সবচেয়ে সবার খারাপ পরিষেবা কোন দেশের জানেন? ভারতের। এমনকি  4জি পরিষেবার স্পিডেও ভারতের চেয়ে কয়েক যোজন এগিয়ে পাকিস্তান, আলজেরিয়া, কাজাখস্তান ও টিউনিশিয়া। মোবাইল অ্যানালিটিক্স সংস্থা ওপেন সিগনাল-এর রিপোর্ট বলছে, ৮৮ টি দেশের মধ্যে সবচেয়ে স্লো ভারতের  4জি ইন্টারনেট স্পিড। 

Image result for 4g-speed

গড়ে ভারতে  4জি স্পিড বলা হয় 6 mbps । পাকিস্তানে দ্বিগুণেরও বেশি, 14 mbps। আলজেরিয়ায় 9 mbps। সবচেয়ে ফাস্ট ইন্টারনেট পরিষেবা সিঙ্গাপুরে। 4জি-তে সিঙ্গাপুরে ডাউনলোড স্পিড 44 mbps। তারপরেই নেদারল্যান্ডস, 42 mbps।
একটি সংস্থার সমীক্ষায় এমনই তথ্য উঠে এসেছে। ২০১৬ এর শেষদিকে রিলায়েন্স জিও পরিষেবা চালু হওয়ার পর সারা দেশে ফোর জি পরিষেবা উল্লেখযোগ্যভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। এর ফলেই র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে। সারা বিশ্বে ফোর জি পরিষেবা প্রদানকারী দেশগুলির মধ্যে ভারত এখন ১৫ নম্বরে।

Image result for use mobile

 

তবে স্পিডের ক্ষেত্রে ৭৫টি দেশের মধ্যে ৭৪ নম্বরে ভারত। এক্ষেত্রে ভারতকে অনেক উন্নতি করতে হবে। এখন ভারতে ফোর জি ডাউনলোড স্পিড গড়ে ৫.১ এমবিপিএস। সারা বিশ্বে সেখানে এই গড় ১৬.২ এমবিপিএস। সারা বিশ্বে থ্রি জি ডাউনলোড স্পিড গড়ে ৪.৪ এমবিপিএস। তার চেয়ে সামান্য এগিয়ে ভারতের ফোর জি ডাউনলোড স্পিড।

Image result for use mobile

 

এই সমীক্ষায় ফোর জি এলইটি পরিষেবার পাশাপাশি স্পিডের বিষয়টিও বিবেচনা করা হয়েছে। রিলায়েন্স জিও পরিষেবা চালু হওয়ার পর সারা দেশে ফোর জি পরিষেবা বাড়লেও, গত ৬ মাসে ভারতে ইন্টারনেটের স্পিড প্রায় এক এমবি কমে গিয়েছে। ফোর জি স্পিডের ক্ষেত্রে শীর্ষে সিঙ্গাপুর। তবে ফোর জি পরিষেবা প্রদানকারী দেশগুলির মধ্যে এক নম্বরে দক্ষিণ কোরিয়া।

Image result for 4g-speed

ভোডাফোন ও আইডিয়া গোটা দেশে 4জি পরিষেবা দিতে পারছে না। একমাত্র রিলায়েন্স জিও ও এয়ারটেল গোটা ভারতেই 4G দিতে পারছে।

তবে খুব শীঘ্রই 5G আসছে আর আমাদের কে অপেক্ষা করতেই হবে ভালো স্পিড পাওয়ার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *