দীপিকার জীবনে এসেছিলেন এই ৭জন পুরুষ!! জানেন, সেই পুরুষ কারা?

দীর্ঘদিন ধরে বলিউডের অভিনেত্রীদের প্রেম-ভালবাসা, বিচ্ছেদ যেন অহরহ। খুব সম্পর্কই শেষ বিয়ে পর্যন্ত গড়ায়। আর প্রেমের ক্ষেত্রে কয়েকধাপ এগিয়ে বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। গত ৫ জানুয়ারি ৩৩ এ পা দিয়েছেন এ অভিনেত্রী। আর দীর্ঘ ১১ বছরের ক্যারিয়ারে অন্তত সাতজনের প্রেমে পড়েছেন পদ্মাবতী।

১) ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, বলিউড ক্যারিয়ারে সবার আগে নীহার পান্ডের প্রেমে পড়েছিলেন দীপিকা। বেঙ্গালুরুতে এক অভিনয়ে স্কুলে তাঁদের আলাপ। আর সেখান থেকেই প্রেম। এমনকি জানা গেছে, মুম্বাইয়ে দুজন এক ছাদের নিচেই থাকতেন। তিন বছর পর দীপিকা ও নীহার আলাদা হয়ে যান।

২) নীহারের পর বলিউডের ‘পদ্মাবতী’-র জীবনে আসেন মডেল তথা অভিনেতা উপেন প্যাটেল। উপেনের সঙ্গে এই বলিউড সুন্দরীর ভালোবাসার সম্পর্ক খুব বেশি দিন টেকেনি।

৩) এরপর দীপিকার জীবনে আবির্ভাব হন ভারতীয় দলের ক্রিকেটার যুবরাজ সিং। যুবরাজের প্রেমে পাগল ছিলেন হাজার হাজার তরুণী। এদিকে এই সুদর্শন ক্রিকেটার আবার দীপিকার রূপে মুগ্ধ ছিলেন। কিন্তু যুবরাজ-দীপিকার প্রেমের গাড়িও বেশি দূর এগোয়নি

৪) তবে যুবরাজের আগে দীপিকার জীবনে আর এক ক্রিকেটার এসেছিলেন। তিনি হলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। ধোনি ও দীপিকা একাধিকবার ডেটে গেছেন। কিন্তু ধোনি থাকাকালে যুবরাজের আগমন হয় তাঁর জীবনে। ধোনি সবকিছু বুঝতে পেরে ধীরে ধীরে যুবরাজ-দীপিকার প্রেমের রাস্তা থেকে সরে দাঁড়ান।

৫) এরপর দীপিকার জীবনে আসেন প্রখ্যাত ব্যবসায়ী বিজয় মাল্যর পুত্র সিদ্ধার্থ মাল্য। দুজনে একসঙ্গে অনেকটা পথ চলেন। দীপিকা সিদ্ধার্থের প্রেমে রীতিমতো পাগল ছিলেন। তাঁদের বিভিন্ন জায়গায় এবং পার্টিতে দেখা যেত। কিন্তু ভাগ্যের পরিহাসে এই প্রেমেরও ইতি ঘটে।

৬) এবার এক বলিউড নায়কের আবির্ভাব হয় দীপিকার জীবনে, রণবীর কাপুর । বলিউডি এই দুই তারকা কখনো তাঁদের প্রেমের কথা লুকানোর চেষ্টা পর্যন্ত করেননি। দীপিকা এতটাই ভালোবাসতেন রণবীরকে যে তাঁর নামের ট্যাটু বানিয়েছিলেন। কিন্তু এক-দুই বছর পর তাঁদের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়।

৭) এই নিরাশার মাঝে তাঁর জীবনে আসেন রণবীর সিং; যদিও রণবীর-দীপিকা কখনো তাঁদের ভালোবাসার কথা স্বীকার করেননি। কিছুদিন আগে রটেছিল তাঁদের ছাড়াছাড়ির খবর। আবার বলিউডে জোর রব, এই দুই বলিউডি তারকা চুপিচুপি তাঁদের বাগদান পর্ব নাকি সেরে ফেলবেন।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *