আমরা দাঁত ব্রাশ করতে গিয়ে যে ৭টি ভুল করি, জেনে নিন

দাঁত ব্রাশের একটি প্রধান কারণ হচ্ছে ক্ষয় রোধ করা। তবে শুধু ব্রাশ করলেই চলবে না। এর কিছু সঠিক পদ্ধতি রয়েছে, যা মেনে না চললে মাড়ি এবং দাঁতের ক্ষতি হতে পারে। এ ছাড়া বেশির ভাগ লোকই ব্রাশের জন্য বেশি সময় ব্যয় করে না।

Image result for mistakes-in-brushing-teeth

কাজের চাপ বা দেরিতে ঘুম থেকে ওঠার কারণে অনেক সময়েই বেশি হলে এক-দেড় মিনিট দাঁত ব্রাশ করি আমরা। ডেনটিস্টরা বলেন, দুই থেকে তিন মিনিট ধরে দাঁত ব্রাশ করা সবচেয়ে ভালো। দাঁত ব্রাশের সময় আমরা কিছু ভুল করি, যার কারণে দাঁত ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে দাঁত ব্রাশের ক্ষেত্রে আমাদের সাতটি ভুলের কথা।

 

১. ভালো করে দেখি না
দাঁত ব্রাশের সময় আমরা সাধারণত আয়নার দিকে ভালো করে খেয়াল করি না। অধিকাংশ সময় মাড়ি এবং জিহ্বা পরিষ্কারের কথা ভুলে যাই। এগুলো মুখের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এর ফলে প্লাক, ব্যাকটেরিয়া তৈরি হতে পারে, যার ফলে মাড়ি সংক্রমিত হয়। তাই ব্রাশ করার সময় জিহ্বা ও মাড়ি ভালোভাবে দেখে পরিষ্কার করতে হবে।

 

Image result for brushing-teeth wikihow

 

২. এলোপাতাড়ি ব্রাশ করা
আমরা অনেকেই এলোপাতাড়ি দাঁত ব্রাশ করি বা বুঝি না কীভাবে সঠিক নিয়মে দাঁত ব্রাশ করতে হয়। এর ফলে দাঁত নাজুক ও দুর্বল হয়ে পড়ে। ব্রাশের ব্রিসলকে ৪৫ ডিগ্রি করে ঘুরিয়ে ব্রাশ করতে হবে। ওপরের দাঁত পরিষ্কার করার সময় ব্রাশটি নিচের দিকে টানতে হবে, আর নিচের পাটি পরিষ্কারের সময় ওপরের দিকে টানতে হবে। সামনের অংশের পর ভেতরের অংশও ভালোভাবে পরিষ্কার করতে হবে।

 

Image result for brushing-teeth wikihow

৩. জোরে ব্রাশ করা
অনেকে খুব শক্তভাবে বা জোরে দাঁত ব্রাশ করে থাকেন। নিয়মিত এই চাপের ফলে দাঁতের ওপরের এনামেল ক্ষয়ে গিয়ে ডেনটিন বেরিয়ে আসে। এটি মাড়িকেও স্পর্শকাতর করে তোলে এবং সমস্যা বাড়িয়ে দেয়। তাই এভাবে ব্রাশ করা চলবে না।

Image result for brushing-teeth wikihow

 

৪. ভুল ব্রাশ নির্বাচন
কেনার আগে অবশ্যই দেখে নিন ব্রাশটি নরম কি না। তবে গবেষকরা সতর্ক করে বলেছেন, সঠিক নিয়মে দাঁত ব্রাশ করা না হলে নরম ব্রাশও ব্যাকটেরিয়া রোধ করতে পারে না। তাই কোন ব্র্যান্ডের ব্রাশ কিনবেন এ বিষয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারেন।

Image result for brushing-teeth wikihow

 

৫. দীর্ঘদিন একই ব্রাশ ব্যবহার
শুনতে অদ্ভুত শোনালেও এটাই সত্যি যে ট্রুথব্রাশই হতে পারে জীবাণুর স্বর্গ। এ কারণেই দীর্ঘদিন একই ব্রাশ ব্যবহার করা ঠিক নয়। কেননা ব্রিসলের মধ্যে ব্যকটেরিয়া বাসা বাঁধতে পারে। এর ব্যবহারে দাঁতের ক্ষতি হয়। তাই চিকিৎসকদের পরামর্শ, তিন মাস পরপর টুথব্রাশ বদলে ফেলুন। এ ছাড়া ব্রাশ ব্যবহারের পর একে গরম জল দিয়ে ধুতে হবে এবং শুষ্ক রাখার চেষ্টা করতে হবে।

Image result for brushing-teeth wikihow

 

৬. ভুল টুথপেস্টের ব্যবহার
বেকিং সোডা আছে এমন টুথপেস্ট ব্যবহারে দাঁতের দাগ দূর হয়, তবে এটি কখনো কখনো এনামেলের জন্য ভালো নাও হতে পারে। তাই গবেষকদের মতে, দাঁত উজ্বল করবে এমন টুথপেস্ট কেনার আগে জেনে নিন এটি দাঁতের জন্য ভালো হবে কি না।

 

৭. ভালোভাবে ধুতে হবে
দাঁত ব্রাশের পর অনেকেই তাড়াহুড়ো করে কুলি করেন। ফলে মুখের ব্যাকটেরিয়া মুখেই থেকে যায়। তাই ব্রাশের পর ভালোভাবে জল দিয়ে মুখ ধুতে হবে বা অ্যালকোহল নেই এমন মাউথওয়াশ ব্যবহার করতে হবে।।

Image result for brushing-teeth wikihow

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *